অসহায় বৃদ্ধাকে মাথা গোঁজার ঠাঁই দিলেন ডিসি

ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা বেগুনবাড়ি ইউপির নতুনপাড়া গ্রামের ৭০ বছর বয়সী বিধবা মর্জিনা বেগম একটি ঘরের জন্য চরম কষ্টে দিন পার করছিলেন।

বর্ষায় মর্জিনা বেগমের মাটির তৈরি একমাত্র ঘরটি ভেঙে পড়ে যায়। ফলে অন্যের বাড়িতে গিয়ে রাত্রিযাপন করতেন। মাথা গোঁজার ঠাঁই হারিয়ে দিশেহারা হয়ে পড়েছিলেন তিনি।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জানতে পেরে এগিয়ে আসলেন ঠাকুরগাঁওয়ের ডিসি ড. কে এম কামরুজ্জামান সেলিম। তিনি তাকে একটি পাকা ঘর তৈরি করে দেয়ার আশ্বাস দেন। প্রতিশ্রুতি দেয়ার মাত্র পাঁচদিনের মধ্যে মর্জিনা বেগমকে মাথা গোঁজার জন্য নতুন পাকা ঘর করে দিচ্ছেন ডিসি।

মঙ্গলবার বিকেলে মর্জিনা বেগমের নতুন ঘরের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন ডিসি ড. কে এম কামরুজ্জামান সেলিম ।

এ সময় এডিসি (সার্বিক) নূর কুতুবুল আলম, এডিসি (রাজস্ব) আমিনুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কামরুন নাহার, সদর ইউএনও আব্দুল্লাহ-আল মামুন,সহকারী কমিশনার (ভূমি) কামরুল হাসান সোহাগ, সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাকসুদা আক্তার মাসুসহ জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

ডিসি বলেন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশ অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ সার্ভিস অ্যাসোসিয়েশন ঠাকুরগাঁও জেলা শাখার অর্থায়নে বৃদ্ধা মর্জিনা বেগমকে একটি নতুন ঘর তৈরি করে দেয়া হচ্ছে।

নতুন ঘর পেয়ে মর্জিনা বেগম বলেন, ‘ডিসি স্যার আমাকে মাথা গোঁজার ঠাঁই করে দিলেন। আমি স্যারের কাছে আজীবন ঋণী হয়ে থাকবো।’

আরো পড়ুনঃ   জাতীয় চিড়িয়াখানায় আসছে আরো আট প্রজাতির প্রাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *