বিয়ে’তে রা’জি না হওয়া’য় নাক-জি’ভ কে’টে দি’লো বি’ধবা’র

‘বিয়ে ক’রতে না চাওয়ায় ২৮ বছরে’র বি’ধবা এক নারী’র না’ক ও জি’ভ কে’টে নিয়ে’ছে দু’ষ্কৃতি’কারীরা। ভারতের রা’জস্থা’নের জ’য়স’লমের জেলা’র সাঁ’কদা থানা এ’লাকায় এ ঘটনা ঘটে’ছে। ঘটনা’র পর পাঁ’চজন’কে গ্রে’ফতা’র করেছে দেশ’টির পুলিশ। খবর আন’ন্দ’বাজার পত্রিকা

জানা গেছে, ১৭ অ’ক্টোব’র বসির খান নামে স্থানী’য় এক বাসিন্দা সাঁ’কদা থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

সেখানে তিনি উল্লেখ করেন তার বোন গু’ড্ডির কথা। গুড্ডি’র ৬ বছর আগে বিয়ে’ হয়ে’ছিল। বি’য়ের ব’ছর’খানেক প’রই তার স্বা’মী’র মৃ’ত্যু’ হয়।

স্বা’মী’ মা’রা যা’ও’য়ার পর ছে’লেকে নি’য়েই আ’ছেন গু’ড্ডি। কি’ন্তু তার ওপর চাপ তৈরি কর’ছিলেন শ্ব’শুর’বা’ড়ির লোকেরা।

তারা বা’ধ্য কর’ছি’লেন গুড্ডি’র থেকে ১৫ বছ’রের বড় এক ব্য’ক্তি’কে বিয়ে করতে। কিন্তু তাতে রা’জি হননি তিনি। সেখা’ন থেকে’ই শু’রু ঝা’মে’লা।

দে’শটি’র পুলিশ জা’নিয়েছে, হা’ম’লার দিন বা’ড়িতে গু’ড্ডি আর তার মা এ’কাই ছি’লেন। সেদিন হঠাৎ তাদের’ বাড়ি’তে ঢুকে পড়ে ১০ থে’কে ১৫ জন হা’ম’লা’কারী।

তাদের হাতে ত’লো’য়ার’সহ একা’ধি’ক ধা’রা’লো ‘অ’স্ত্র ছিল। ছিল বন্দুক ও লাঠি। সে’সম’য়ই গু’ড্ডি আর তার মা’য়ের ওপর হা’মলা’রী’রা ঝাঁ’পিয়ে প’ড়ে।

গু’ড্ডির জিভ ও নাক ‘কেটে নে’য়া হয়। চিৎকা’র শু’নে আশে’পাশে’র লোক ছু’টে এসে পুলি’শ’কে খবর দেন এবং আ’হ’ত দুই ম’হি’লাকে হাস’পাতা’লে নিয়ে যান।

আরো পড়ুনঃ   ফাঁকা বাসায় গ’লা’য় ছু’রি ধরে পুত্রবধূকে ‘ধ’র্ষ’ণ’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *